মামীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় ভাগীনা, অতঃপর…

ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলায় মামীর সাথে ভাগীনাকে বিছানায় অসামাজিক কার্যকালাপে লিপ্ত থাকার সময় হাতেনাতে আটক করে গনধোলাই দিলো বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

গত ২৫ মে শনিবার রাত ১০.৪০ মিঃ উপজেলার ৬নং নেপা ইউনিয়নের বাঘাডাংগা জিনজিরে পাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।আটককৃত মামী একই গ্রামের ডুবাই প্রবাসী ইউনুছ আলির স্ত্রী ৩ সন্তানের জননী মোছাঃরেহেনা খাতিন(৪০) ও ভাগীনা আতিয়ার রহমানের ছেলে মোঃওয়াসিম উদ্দিন(২৮)।

ঐ রাত্রে রেহেনা খাতুন নিজ বাড়িতে ভাগীনা ওয়াসিমের সাথে অৈবধ মেলামেশার সময় পাশের বাড়ির ছাদে থাকা আসমাউল,ফরজ আলি,হাকিম ও আহাদ আলি বিষয়টি আঁচ করতে পেরে এলাকাবাসীদের নিয়ে তাদের হাতেনাতে আটক করে গনধোলাই দিয়ে সারারাত আটকিয়ে রাখে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়,পরের দিন ২৬ মে রাত ১১.০০ টার সময় ইউপি সদস্য মমিন মিয়া ও ছায়েরা খাতুন এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ সালিশে বসে তাদেরকে জনসম্মুখে তওবা কাটিয়ে উত্তমমাধ্যম দিয়ে একপর্যায়ে মিমাংসা করা হয়।

তারা আরও জানায় যে মামী রেহেনা ও ভাগ্নে ওয়াসিম দীর্ঘদিন ধরেই তাদের অবৈধ জৈনিক কার্যকালাপ চালিয়ে আসছিলো।ইউপি সদস্য মমিন মিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান,বিষয়টি অত্যান্ত লজ্জাজনক,ঘটনাটি জানার পরে আমি ও মহিলা ইউপি সদস্যসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গদের নিয়ে শালিসের মাধ্যমে বিষয়টি মিমাংসা করা হয়েছে।