হায়রে দুনিয়া -ভিডিওটি দেখে না কেঁদে থাকতে পারলাম না-পরির মতো মেয়েটিকে নদীর পারে এভাবেই – দেখুন ভিডিওতে !

হায়রে দুনিয়া -ভিডিওটি দেখে না কেঁদে থাকতে পারলাম না-পরির মতো মেয়েটিকে নদীর পারে এভাবেই – দেখুন ভিডিওতে !হায়রে দুনিয়া -ভিডিওটি দেখে না কেঁদে থাকতে পারলাম না-পরির মতো মেয়েটিকে নদীর পারে এভাবেই – দেখুন ভিডিওতে !হায়রে দুনিয়া -ভিডিওটি দেখে না কেঁদে থাকতে পারলাম না-পরির মতো মেয়েটিকে নদীর পারে এভাবেই – দেখুন ভিডিওতে !হায়রে দুনিয়া -ভিডিওটি দেখে না কেঁদে থাকতে পারলাম না-পরির মতো মেয়েটিকে নদীর পারে এভাবেই – দেখুন ভিডিওতে !হায়রে দুনিয়া -ভিডিওটি দেখে না কেঁদে থাকতে পারলাম না-পরির মতো মেয়েটিকে নদীর পারে এভাবেই – দেখুন ভিডিওতে !

স্বামীকে বেধে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, স্বামীকে বাড়ির পাশের মাঠে বেঁধে স্ত্রীকে তুলে নিয়ে রাতভর তিনজন পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণে সহযোগিতা করার অভিযোগে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর শ্বশুর-শাশুড়ি ও ননদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামে। এদিকে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূকে উদ্ধার করে রোববার (২৭ মে) রাতে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় সোমবার সকালে তিনজনের নাম উল্লেখসহ আরো অজ্ঞাত তিনজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ধর্ষিতার পরিবারের লোকজন জানায়, রাজবাড়ির খোকসা গ্রামের যুবতীর সাথে ৪ বছর আগে বিয়ে হয় চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গার পাইকপাড়ার এক যুবকের সাথে। বিয়ের পর থেকেই পুত্রবধূকে স্বাভাবিকভাবে মেনে নিতে না পেরে শাশুরি ও ননদরা নানাভাবে নির্যাতন করতে থাকে। অভিযোগ অত্যাচার লেগেই ছিলো। এরই এক পর্যায়ে গতপরশু ঘটে বাড়ি থেকে স্বামী-স্ত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে। ধর্ষণের এ ঘটনায় শ্বশুড়-শ্বাশুরি, ননদের সহযোগীতা রয়েছে বলে অভিযোগ তাদের।

ধষিতার শিকার ওই গৃহবধু ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে জানান, গতপরশু রাতে তার স্বামীকে তিন জন ধরে নিয়ে বাড়ির পাশের মাঠে বেঁধে রাখে। তারপর তাকে তুলে নিয়ে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে তিনজন। এরপর ভোররাতে মুক্ত হয়ে বাড়ি ফেরার পর শাশুড়ি ননদেরা এ বিষয়ে মুখ খুলতে শুধু বারণই করে না, ঘরে আটকে রাখে। পরে বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে প্রতিবেশীরা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ ফখরুল আলম খাঁন জানান. এ ঘটনায় ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে সোমবার সকালে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার ৬ জন আসামীর মধ্যে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকীদের গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।