Breaking News
Home / Bangladesh / ব্রেকিং নিউজঃস্বাভাবিক ভাবে মারা যাননি আনিসুল হক , পরিবারের দাবি ! হাসপাতালে কি ঘটেছিল সেদিন?

ব্রেকিং নিউজঃস্বাভাবিক ভাবে মারা যাননি আনিসুল হক , পরিবারের দাবি ! হাসপাতালে কি ঘটেছিল সেদিন?

অনেকে বলেন, জীবন ও মৃত্যু পাশাপাশি চলে। আমি বলবো, পাশাপাশি নয়, চলে একই সঙ্গে। মানুষ জন্মেই তার মৃত্যুকে সঙ্গে নিয়ে, সঙ্গী করে। এক সময় সঙ্গী চলে যায়, মৃত্যু থাকে। এই আছে, এই নেই- এটাই জীবন। জীবন এমনই।

সাম্প্রতিক ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের উত্তর এর মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যু নিয়ে সারা দেশে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে!একজন সুস্থ মানুষ যিনি স্বাভাবিক ভাবে সব কাজ পরিচালনা করছিলেন , তিনি হঠাৎ করেই কিভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন ? তাও বিদেশে যাওয়ার পর পর ই ? সন্দেহের প্রশন থেকে গেছে দেশবাসীর মনে!

একটা দিব্যি সুস্থ, স্বাভাবিক, ছুটেচলা, দৌড়ে বেড়ানো মানুষ লন্ডনের ন্যাশনাল নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তির পর থেকে নিরব, নিশ্চল। এই না মাত্র দেখলাম সরব, এখনই মানুষটি নিরব ভাবা যায় কতটা কষ্টের, কতটা বেদনার, কতটা হুহু কান্নার আর আর্তনাদের এই পরিস্থিতি?

তবে তার পরিবারের কেউ কেউ তার এই মৃত্যুকে ভিন্ন দৃষ্টিতে দেখছেন । অনেকেই যোগ সাজস খুঁজছেন প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তার গোপন বৈঠকের গুজব উঠানোর ঘটনাটিকে নিয়ে । অনেকেই বলছেন , কোন ষড়যন্ত্রের শিকার হননিত আবার আনিসুল হক ? লন্ডনের হাসপাতালে তার সাথে সার্বক্ষণিক কেউ ছিলেন না কেননা তিনি স্বাভাবিক রোগী হিসেবেই ভর্তি হন । কোনভাবে রাজনৈতিক কোন উদ্দেশ্যে তাকে মেরে ফেলা হয়নি আড়ালে , এরই বা নিশ্চয়তা কোথায় ?

মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর এই দুই বছরে অবৈধ দখল উচ্ছেদসহ বেশ কিছু বিষয়ে শক্ত অবস্থান নিয়ে অনেকের নজর কাড়েন আনিসুল হক। পড়েন অনেকের রোষানলেও । কিন্তু কোন কিছুতেই হার মানেন নি তিনি । বাণিজ্যিক ভাবেই অনেকের শত্রুতে পরিণত হয়েছিলেন এসব কারণে ! এমনটি অনেকেই বলছে বারবার !

যেহেতু আনিসুল হক মানুষের ভালোবাসার মানুষ। মানুষ তার খবর পেলেই, পড়বেন। মানুষের এই ভালোবাসা আর আবেগকে পুঁজি করে এক শ্রেণির গণমাধ্যম যে যার মতো খবর প্রচার করতে থাকে, নেহাত বাণিজ্যিক স্বার্থে। ইউটিউবে ভিডিওক্লিপ দিতে থাকে টাকা উপার্জনের উদ্দেশ্যে। আনিসুল হক পরলোকগমন করেন ৩০ নভেম্বর, বাংলাদেশ সময় রাত ১০.২৩ মিনিটে। অনেক নিউজ পোর্টাল আরও আগেই তার মৃত্যু সংবাদ প্রচার করেছে। একটি বেসরকারি টেলিভিশন তার মৃত্যুও একদিন আগেই স্ক্রল প্রচার করতে থাকে, তার মৃত্যু সংবাদের।