কী সুবিধা নিয়ে আসছে ফাইভ জি

সম্প্রতি দেশে চালু হয়েছে চতুর্থ প্রজন্মের টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা ফোর জি। অবশ্য উন্নত বিশ্ব এ সুবিধা চালু করেছিল ২০১০ সালেই। বাংলাদেশ যখন ফোর জি যুগে প্রবেশ করল, তখন বিশ্বে প্রস্তুতি নিচ্ছে পঞ্চম প্রজন্মের টেলি-প্রযুক্তি ফাইভ জি ব্যবহারের।

ফাইভ জি নেটওয়ার্ক নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে। এটির পরীক্ষা এখন চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। তবে এজন্য বছরখানেক সময় লাগতে পারে। কী সুবিধা নিয়ে আসছে ফাইভ জি?

প্রথমত, তারবিহীন নেটওয়ার্কিং ব্যবস্থায় বড় ধরনের অগ্রগতি সাধন হবে। বহু ইন্ডাস্ট্রিকে সংযুক্ত করবে এটি। ফাইভ জি মডেম ব্যবহারে লাইন নির্ভর ইন্টারনেট এবং মডেম ব্যবহার উল্লেখযোগ্য হারে কমবে।

দ্বিতীয়ত, ইন্টারনেটে তথ্য আদান-প্রদানে ফোর জি’র চেয়ে ৫০ থেকে ১০০ গুণ দ্রুত গতির হতে পারে।

তৃতীয়ত, মোবাইল ফোন সেবায় এবং এখাতের পুরো ব্যবসায় বড় ধরনের পরিবর্তন সাধিত হতে পারে।

চতুর্থত, শুধু মোবাইল এবং কম্পিউটারে দ্রুত গতির ইন্টারনেট সুবিধা ছাড়াও এটি গাড়ি, যন্ত্রপাতি এবং ফসলের সরঞ্জামাদিকেও সংযুক্ত করতে সহায়তা করবে।

পঞ্চমত, আল্ট্রা এইচডি এবং ত্রি-ডি ভিডিও দেখা যাবে।

অবশ্য এই ফাইভ জি প্রযুক্তির চ্যালেঞ্জও রয়েছে। বিশেষ করে এই এই পরিবর্তনের জন্য যেসব দেশ প্রস্তুত নয়, তারা পিছিয়ে পড়বে।
ফেসবুকের বুকমার্কস মেনু বদল

বুকমার্কস মেনু আপডেট করেছে ফেসবুক। অ্যাকাউন্টের ওপরে ব্যবহারকারীদের নিয়ন্ত্রণ বাড়াতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্টটি।

ইতোমধ্যে ফেসবুকের বিভিন্ন সেটিংসে পরিবর্তন আনতে আগে বিভিন্ন পেজ যেমন অ্যাকাউন্ট সেটিংস, প্রাইভেসি শর্টকাট, নিউজ ফিড প্রেফারেন্সেস, অ্যাক্টিভিটি লগ ও পেমেন্ট সেটিংসে আলাদাভাবে যেতে হতো। এখন থেকে এই সেটিংসগুলো একত্রেই বুকমার্কস মেনুতে পাওয়া যাবে।

নতুন আপডেটে অতিরিক্ত ক্লিক করা এড়াতে বুকমার্কসের অনেক অপশন সামনে রাখা হয়েছে। পরিবর্তন আনা হয়েছে ইন্টারফেইস ও আইকনেও।

আরও খবর : মোবাইলের গতি বাড়াতে যা করবেন

এছাড়াও, ফেসবুক ‘প্রাইভেসি শর্টকাটস’ নামে একটি ফিচার যোগ করেছে। এর মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা নির্ধারণ করতে পারবেন কে তাদের প্রোফাইল দেখতে পারবেন এবং কারা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন।

গত মাসে রাজনৈতিক কনসালটেন্সি ফার্ম কেমব্রিজ অ্যানালিটিকার বিরুদ্ধে পাঁচ কোটি ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য চুরির অভিযোগ ওঠে।

এই তথ্যগুলো ২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারণার কাজে ব্যবহার করা হয়। এ ঘটনায় জনরোষের মুখে পড়ে প্রাইভেসি সেটিংসের ইন্টারফেইস সহজ করার ঘোষণা দেয় ফেসবুক।